খাদ্যমূল্য বৃদ্ধিতে ভুক্তভোগী দুর্বল দেশ

  • Posted on 11-07-2021 10:20:17
  • National

আমিষ ডেস্ক ॥ 

সারা বিশ্বে খাদ্যদ্রব্যের দাম খুব দ্রুত বাড়ছে। এক দশকের মধ্যে খাদ্যমূল্য বৃদ্ধির হার এখন সবচেয়ে বেশি। খাদ্যমূল্য বাড়ার কারণে সবচেয়ে সংকটে পড়েছে অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল দেশগুলো। তার ওপর করোনাভাইরাস মহামারির কারণে দেশগুলোর অবস্থা আরো খারাপের দিকে যাচ্ছে। জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি বিষয়ক সংস্থা (এফএও) খাদ্যমূল্যের এ ঊর্ধ্বগতিতে উদ্বিগ্ন। তারা আশঙ্কা, করছে এভাবে খাদ্যমূল্য বাড়তে থাকলে কয়েকটি দেশে সামাজিক অস্থিতিশীলতা দেখা দেবে। এর মধ্যে কয়েকটি দেশের রাজনৈতিক অবস্থা এমনিতেই টালমাটাল। 
এফএওর প্রতিবেদনে উঠে এসেছে, গত এক বছরের তুলনায় গত মে মাসে খাদ্যমূল্য ৪০ শতাংশ বেশি ছিল। ২০১১ সালের সেপ্টেম্বরের তুলনায় এ মূল্যবৃদ্ধি সবচেয়ে বেশি। এক বছরের হিসাবে ভুট্টার দাম ৮৮ শতাংশ, সয়াবিন ৭৩ শতাংশ, শস্য ও দুগ্ধজাত দ্রব্য ৩৮ শতাংশ, চিনি ৩৪ শতাংশ এবং মাংসের দাম ১০ শতাংশ হারে বেড়েছে। বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির (ডাব্লিউএফপি) প্রধান অর্থনীতিবিদ আরিফ হুসাইন বলেন, ‘সত্যিকার অর্থেই এ পরিস্থিতি খুব উদ্বেগজনক।’ 
বিশ্বব্যাংকের তথ্য অনুসারে, ২০২১ সালে চীনের প্রবৃদ্ধি ৮.৫ শতাংশ দাঁড়াবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর সঙ্গে চীনে পাল্টা দিয়ে বাড়ছে মৌলিক খাদ্যদ্রব্যের চাহিদা। সেখানে প্রতিনিয়ত তেলবীজ, শস্য ও মাংসের চাহিদা বেড়ে চলছে। অর্থনীতিবিদ ফিলিপ কালমিন চীনকে বর্তমান বিশ্বে খাদ্যমূল্য বৃদ্ধির জন্য দায়ী করছেন। চীন ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র নিজেদের অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে চেষ্টা চালাচ্ছে। এর মধ্যে তারা ভালোভাবেই পুনরুদ্ধারে সক্ষম হয়েছে। বিশ্বব্যাংকের তথ্য অনুসারে এ বছর যুক্তরাষ্ট্রের প্রবৃদ্ধি ৬.৮ শতাংশ। 
 

You May Also Like