মুসলিমদের শূকরের মাংস পরিবেশন কেন?

আমিষ ডেস্ক ॥ 

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা স্টেটের মায়ামীতে ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্ট (আইস) থেকে ‘ডিটেনশন সেন্টারের’ মুসলিমদের মধ্যে শূকরের মাংস এবং মেয়াদোত্তীর্ণ খাবার পরিবেশনের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন কংগ্রেসে হোমল্যান্ড সিকিউরিটি মন্ত্রণালয়ের বাজেট সম্পর্কিত কমিটির প্রভাবশালী সদস্য  কংগ্রেসওম্যান (নিউইয়র্ক-ডেমক্র্যাট) গ্রেস মেং। অভিবাসন দফতরের দেখভালের দায়িত্বপ্রাপ্ত হোমল্যান্ড সিকিউরিটি ডিপার্টমেন্টের মন্ত্রী চাদ ঔলফকে ২০ আগস্ট প্রদত্ত এক পত্রে কংগ্রেসওম্যান মেং উল্লেখ করেছেন,  ‘মুসলিমদের শূকরের মাংস খেতে বাধ্য করা হচ্ছে এবং অন্যান্য খাবারও মানসম্মত নয়। এমনকি মেয়াদোত্তীর্ণ খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে হরদম। কেন করা হচ্ছে এমন বেআইনি কাজ- তার ব্যাখ্যা দিতে হবে। এইসঙ্গে বন্দীরা যাতে নিজ নিজ ধর্মীয় অনুভূতির পরিপূরক খাদ্য পায়- সে নিশ্চয়তাও দিতে হবে। এ অধিকার প্রতিটি মানুষের মতো ডিটেনশন সেন্টারের বন্দীদেরও রয়েছে’। কংগ্রেসনাল বাংলাদেশ ককাসের প্রভাবশালী সদস্য গ্রেস মেং আরও উল্লেখ করেছেন, ‘করোনা ভাইরাসে বিপর্যস্ত গোটা জাতি। তবে এটিকে অজুহাত হিসেবে দাঁড় করিয়ে ডিটেনশন সেন্টারে আটকদের ইচ্ছার বির“দ্ধে কিছু করার সুযোগ কারোরই নেই। সবার সম্মান এবং অধিকার সংহত রাখার দায়িত্ব প্রতিটি দফতরের। এ অবস্তায় মন্ত্রীকে আমি ব্যক্তিগতভাবে উদ্ভুত পরিস্তিতির অবসানে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য আহ্বান জানাচ্ছি’।

You May Also Like